সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

ওয়েবসাইট লোডিং স্পিড নিয়ে বিস্তারিত

আমরা আমাদের সাইট গুলোকে কতটা ভিসিটর ফ্রেন্ডলি করেছি এটা কিন্তুু একটা গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট। এই পয়েন্ট এর ভিতরে অনেক বিষয় নিয়ে লিখা যাবে, তবে আজকে মনে হচ্ছে ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড নিয়ে কথা বলা দরকার যদিওবা এটা নিয়ে তেমন আলোচনা হয়না কারন আমরা এই বিষয়কে তেমন পাত্তাই দেইনা।



আমরা আমাদের সাইট গুলোকে কতটা ভিসিটর ফ্রেন্ডলি করেছি এটা কিন্তুু একটা গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট। এই পয়েন্ট এর ভিতরে অনেক বিষয় নিয়ে লিখা যাবে, তবে আজকে মনে হচ্ছে ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড নিয়ে কথা বলা দরকার যদিওবা এটা নিয়ে তেমন আলোচনা হয়না কারন আমরা এই বিষয়কে তেমন পাত্তাই দেইনা।
কিন্তুু এই বিষয়টি নিয়ে প্রফেশনালরা খুব সিরিয়াস থাকেন বিষেশ করে যারা এফিলিয়েট ও শপ বিজনেস করেন।

আসলে গুগল চায় ইউজার ফ্রেন্ডলি কিছু করেন আপনি। আর নতুন আপডেট গুলোতে এই দিকে বিষেশ নজর দেওয়া হয়েছে যেটা আগের পোস্টে আলোচনা করা হয়েছে। কিছু ধারনা দিলে বুঝতে পারবেন তা হলো যখন কোন ভিজিটর কোন কিওয়াড দিয়ে সার্চ করে তখন ফলাফল গুলো থেকে ২-৩ টা ওয়েবসাইট কে ওপেন ইন নিও টেব এ ক্লিক করে দেখে, তখন সেই পারসন টি যেই সাইটটিতে বেশি সময় থাকে এবং ক্লিক করে অন্য কোন পেজে যেতে এসব প্রসেস গুলোকে গুগলের একটি রোবট সেভ করে রাখে- কেননা এখানে রোবটটি খুব সহজেই বুঝতে পারে যে আসল এবং ভালো সাইট কোনটা তখন সেই সাইটটিকে আগে বারিয়ে দেয়।

সুতরাং এখন চিন্তার বিষয় যে এখানে কোন কোন বিষয়গুলো লক্ষনিও। পয়েন্ট আকারে দেই।

১। আসলে যখন কোন ইউসার গুগলসার্চের ফলাফল গুলো থেকে কয়েকটিমাত্র টেব অপেন করেন তখন কোন পেজটিতে সে প্রথমে যায়, নিশ্চয় জেই পেজটা আগে লোড হয়ে ভিও হয় সেটাতে। তো বুঝতেই পারছেন তাহলে স্পিড টা কত ইমপরটেন্ট এবং আপনার কন্টেন্ট টা ভালো হলেলে তো একদম সোনায় সোহাগা।

২। যেসব কারনে লোডিং টাইম বেশি লাগে সেসব চিজ যদি আপনার সাইটে থাকে তাহলে নিশসন্দেহে ভিতরেও গরবর থাকবে। যেমন ইমেজ আসতে দেরি হবে, সাইটের ডিজাইন আসতে দেরি হবে, অরিজিনাল ফন্ট আসতে দেরি হবে এক কথায় সব শেষ। তাই বিষয়টি খুব গুরুত্ববহ আজই এসব ঠিক করে ফেলুন।

৩। আপনার সাইটের ডিজাইন টি ভালো হলে সবাই বেশিক্ষন থাকবে পেজে নাহলে দেখেই কেটে পরবে তাই ডিজাইন টাও ভালো হওয়া দরকার।

৪। কন্টেন্ট যত বড় দিন না কেন যদি কন্টেন্টে কোন ভেলু না পায় ইউসার তাহলে কিন্তুু আপনি বিজিটর ধরে রাখতে পাড়বেন না তাই কন্টেন্টটি ভালো মানের হতে হবে।

এই কথা গুলো এই পসঙ্গে চলে আসলো আসলে সবই দরকার কোনটাই ছাড়া যাবেনা তাই এই বিষয়গুলো নিজ দায়িত্বে ঠিক করুন।

পেজ লোডিং স্পিড যত কম হবে সাইট তত রেংক হবে আর ইউজার ফ্রেন্ডলি হবে যা গুগলল চায়।

এখন কথা হলো কিভাবে এই কাজটি করবেন? খুব সোজা অল্পকিছু রিসার্চ করে ফ্রি টিউটোরিয়াল গুলো ফ্লো করে কাজ সেরে ফেলুন নাহয় এবিষয়ে এক্সপাট কাউকে হায়ার করুন।

মন্তব্যসমূহ

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

২০১৮ তে সাইটকে যেভাবে আপডেট রাখবো

আমরা সবাই জানি গুগল আবারো আপডেট হয়েছে এবং ক্রমে ক্রমে বৃদ্ধি পাচ্ছে বিভিন্ন নিয়ম কানুন, যারা নিয়মকানুন মেনে সাইট চালাচ্ছেন তারাই রেংকিং করছেন। ২০১৮ তে অনেক সাইটের রেংকিং নিচে চলে গেছে তাদের নিজেদের ভুলের কারনে এখন এমন অনেক বিষয় আছে যেগুলো একসময় অনেক ভেল্যু রাখতো কিন্তুু এখন তার কোন দাম নেই।

কিভাবে EDU and GOVT Backlinks করবেন

Bloggerযারা, তারাকিন্তুুঠিকভালেভাবেইযানেন Blog কে Rank করানোরজন্যEducation and Governmentসাইটের Backlinks কতটাজরুরি।আমরাবিভিন্নভাবেএইসাইটগুলোথেকে Backlinks নিতেপারি।তবেএরআগে.Edu & .Govt Linksগুলোসমন্ধেজানাদরকার।

Link Building শুরু করুন এখনই

আসলে গুগলের আপডেট গুলোর সাথে তাল মিলিয়ে চললে সাইটের বারটা বেজে জাবে।

গুগলগ্রুপ যখন পেঙ্গুইন, পানডা, এনিম্যাল আপডেট করে এবং এ সমন্ধে পাবলিসিটি করে তার সাথে সাথেই তারা আপডেট গুলোকে বাস্তবায়ন করে না।